হোম মোটরসাইকেল টিপস মোটরসাইকেল চুরি রোধে করণীয় বা বাইক চুরি প্রতিরোধ করার উপায়

মোটরসাইকেল চুরি রোধে করণীয় বা বাইক চুরি প্রতিরোধ করার উপায়

0
0
মোটরসাইকেল চুরি রোধে করণীয়

মোটরসাইকেল চুরি রোধে করণীয় বা বাইক চুরি প্রতিরোধ করার উপায়

অনেকের কাছে মোটরসাইকেল শখের। অনেকের কাছে প্রয়োজনীয়। অনেকের কাছে সন্মানিয়। কিন্তু চোর মামার কাছে আপনার প্রিয় বাইকটি হচ্ছে লোভনীয়। আপনার একটু অসতর্কতার কারণে যেকোন সময় আপনার প্রিয় মোটরসাইকেলটি হাওয়া হয়ে যেতে পারে। কারণ আপনি জানেননা যে আপনাকেসহ আপনার বাইককে একজন চোখে চোখে রাখছে। আপনার একটু বেখেয়ালের কারণে সে যেকোন সময় বাইক নিয়ে পালাতে পারে।  আমাদের দেশে সাধারনত বাসা, মার্কেট, পার্কিং প্লেস ইত্যাদি জায়গা থেকে মোটরসাইকেল চুরি হয়। চুরি ঠেকানোর জন্য অনেকেই বিভিন্ন ধরনের তালা, পদ্ধতি বা কিছু ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে থাকেন। এর পরেও অনেক সময়ে চুরি ঠেকানো কঠিন হয়ে যায়।

তবে একটু সতর্কতা অবলম্বন করলে আপনি আপনার প্রিয় বাইকটির চুরি হওয়া ঠেকাতে পারেন। আমি এখানে আজ আপনাদেরকে সেরকমই কিছু টিপস শেয়ার করব যেগুলো অনুসরন করলে আপনার পচ্ছন্দের বাইকটি চুরি হতে রক্ষা পাতে পারে।

চলুন দেখে নেই মোটরসাইকেল চুরি রোধে করণীয় সমুহ

মোটরসাইকেল পার্কিংয়ের সময় যেই বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন

মোটরসাইকেলটি অবশ্যই নির্জন জায়গায় পার্কিং করবেন না। যতটুকু সম্ভব চোখের সামনেই রাখুন। অন্তত কিছুক্ষন পরপর দেখা যায় এমন স্থানে পার্কিং করুন। নির্জনে গাড়ী স্থানে পার্কিং করলে চোর গাড়ী তুলে নিয়েই যেতে পারে। অনেক সময় দেখা যায় চোর এসে মোটরসাইকেলটির মালিক দাবী করে চাবি হারিয়েছে ফেলেছি বলে আসে পাশের সাধারণ জনগণের সাহায্য নিয়ে বাইক ভ্যানে উঠিয়ে নিয়ে যেতে পারে।  তাই অবশ্যই নিরাপদ জায়গায় দেখে তারপর বাইকটি টি পার্কিং করুন।

ভালো লক বা তালা ব্যবহার করুন

আমাদের দেশে একটি ভালো মানের তালার দাম খুব বেশি না। মোটামুটি ৩৫০ থেকে ৭০০টাকায় ভালো মানের তালা পাওয়া যায়। কিন্তু এই তালা গুলো তুলনামুলক অনেক নিরাপদ। আপনার দামি মোটরসাইকেলটি চোরের হাত থেকে বাচাতে সামান্য কয়টা টাকা  কার্পন্য করা উচিত নয়। বাইকের ডিস্ক ব্রেইকে ডিস্ক লকের চেয়ে সাধারন মেকানিক্যাল মজবুত তালা ব্যবহার করা অনেক নিরাপদ। অনেক সময় দেখা যায় চোর বাইক স্টার্ট করে জোরে টান দিলে এমনিতেই ডিস্ক লক ভেঙ্গে যায়। দৃষ্টিকটু হলেও মোটা শিকল ব্যাবহার করতে পারেন । যা চোরের পক্ষে কাটা কিছুটা কঠিন এবং সময় সাপেক্ষ।

সিকিউরিটি এলার্ম লক ব্যবহার করুনঃ

মোটরসাইকেলে সিকিউরিটি এলার্ম লক ব্যবহার করুন। সিকিউরিটি এলার্ম লক আপনার বাইকের চুরি রোধে সহায়তা করবে। এমন একটি সিকিউরিটি এলার্ম লাগাবেন যেটি  অনেকদূর পর্যন্ত কাজ করবে। কেউ বাইকে হাত দিলে বা স্টার্ট দেবার চেষ্টা করলে তীব্র শব্দে এলার্ম বেজে উঠবে।

জিপিএস ট্র্যাকার বা ইমোবিলাইজার সেন্সর সিস্টেম ব্যবহার করুন

মোটরসাইকেলে ভাল ভালো মানের একটি জিপিএস ট্র্যাকার লাগান। বাইক কোন যায়গায় রেখে যাবার পর আগে চেক করে দেখবেন জিপিএস ট্র্যাকার সঠিক লোকেশন শো করছে কিনা। এছাড়াও ইঞ্জিন ইমোবিলাইজার সেন্সর সিস্টেম ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে চোর বাইক চাবি দিয়ে অন করলেও স্টার্ট করতে পারবে না। ইঞ্জিন কিল সুইচ ইঞ্জিনের সাথে কানেকশন দিয়ে লাগাতে পারেন এবং তা অবশ্যই গোপন যায়গায় লুকিয়ে রাখবেন যেন আপনি ছাড়া আর কেউ না জানে।

গ্যারেজে রাখুন বা কাউকে দেখতে বলুন

আপনি অপরিচিত কোথাও গেলে মোটরসাইকেলটি অবশ্যই কোন প্রতিষ্ঠিত  গ্যারেজে রাখুন । অথবা কোন সিকিউরিটি গার্ডকে ১০-২০ টাকা বকশিস দিয়ে বাইকের উপর নজর রাখতে বলতে পারেন। পরিচিত কোন দোকানের সামনে বাইক পার্ক করলে আপনার বাইকের দিকে একটু নজর রাখতে  দোকানদারকে অনুরোধ করবেন।

অপরিচিত বা স্বল্প পরিচিত কাউকে মোটরসাইকেল দিবেন না

অপরিচিত বা স্বল্প পরিচিত কেউ এসে কোন বিপদে কোথাও যেতে হবে বলে বাইক চাইলে তার হাতে বাইক দিবেন না। বেশির ভাগ চুরির ঘটনা এভাবেই ঘটে । আর মানবিক কারণে যদি মোটরসাইকেল দিতেই হয় তাহলে আপনিও সাথে যান।

যথা সম্ভব রাতের বেলা বাইক চালানো পরিহার করুন

অপরিচিত রাস্তায় রাতের বেলা রাইড করবেন না। রাতের বেলা বাইক চালানোর সময় পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা আছে এরকম রাস্তা দিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন।  রাতের বেলা বাইক চালানোর সময় সাথে একজন কো-রাইডার রাখবেন অথবা কোন গ্রুপের সাথে যাতায়াত করবেন। রাতের বেলা অপরিচিত কাউকে বাইকে লিফট দিবেন না বিশেষ করে কোন মহিলাকে ভুলেও লিফট দিতে যাবেন না। ডাকাত বা ছিনতাই কারী এভাবেই ফাঁদ পাতে।

আশাকরি উপরোক্ত নিয়মগুলো মেনে চললে মোটরসাইকেল চুরির সম্ভবনা কমবে। তবুও যদি কোনভাবে আপনার মোটরসাইকেলটি চুরি হয়ে যায়, তবে সাথে সাথে নিকটস্থ থানায় যোগাযোগ করুন। প্রয়োজনে স্থানীয় থানার ফোন নম্বর সাথে রাখবেন বা পুলিশের ফোন নম্বর সম্বলিত অ্যাপ টি মোবাইলে ইনস্টল করে রাখতে পারেন।

আরো প্রাসঙ্গিক প্রবন্ধ লোড করুন
আরো লোড করুন মোটরসাইকেলবিডি
আরো লোড করুন মোটরসাইকেল টিপস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।