সুজুকি হায়াতে (Suzuki Hayate) মোটরসাইকেল ফিচার রিভিউ

সুজুকি হায়াতে (Suzuki Hayate) মোটরসাইকেল ফিচার রিভিউ


সুজুকি হায়াতে (Suzuki Hayate) মোটরসাইকেল ফিচার রিভিউ

জাপানি মোটরসাইকেল ব্র্যান্ড সুজুকি হচ্ছে বাংলাদেশের অন্যতম সফল ও জনপ্রিয় মোটরসাইকেল। আর এই সুজুকি মোটরসাইকেল কোম্পানির মোটরসাইকেলগুলো বাংলাদেশের মোটরসাইকেল প্রেমিদের কাছে বেশ পছন্দের যার কারণে মোটরসাইকেল ক্রয় করার সময় অনেকেই সুজুকি ব্র্যান্ডের নতুন মোটরসাইকেল কিনতে চান। আর সুজুকি মোটরসাইকেল কোম্পানির স্পোর্টস বাইকের পাশাপাশি বর্তমান সময়ে স্ট্যান্ডার্ড ধরণের বাইকের চাহিদাও ব্যাপক। আর আজকে আমি আপনাদের মাঝে সুজুকি মোটরসাইকেল কোম্পানির নতুন একটি চমৎকার স্টাইলিশ ডিজাইনের স্ট্যান্ডার্ড ধরণের মোটরসাইকেল সম্পর্কে আলোচনা করবো আর সেই মোটরসাইকেলটি হচ্ছে সুজুকি হায়াতে (Suzuki Hayate)। আর এটি হচ্ছে ১০০ সিসির একটি মোটরসাইকেল আর এতে সংযুক্ত করা হয়েছে চমৎকার সব ফিচার। তো চলুন জেনে নেয়া যাক কি কি ধরণের ফিচার রয়েছে এই সুজিকি হায়াতে মোটরসাইকেলটিতে।

ডিজাইনঃ

চমৎকার স্টাইলিশ ডিজাইন নিয়ে হাজির হয়েছে এই সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলটি যা সহজেই মানুষকে আকৃষ্ট করতে সক্ষম। এই স্ট্যান্ডার্ড ধরণের মোটরসাইকেলের সামনের অংশে রয়েছে সামান্য লম্বা আকারের চমৎকার ডিজাইন করা একটি হেডলাইট যা সহজেই আপনার নজর কাড়বে। আর এই মোটরসাইকেলের লম্বা আকারের মঝাড়ি ধরণের ফুয়েল ট্যাংকটি বেশ স্টাইলিশ ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে এবং এটি চমৎকার আকর্ষনিয় দেখতে যা সহজেই মোটরসাইকেল প্রেমিদের আকৃষ্ট করবে। আর বাইকের পেছনের অংশে রয়েছে চমৎকার স্মার্ট ডিজাইনের বসার সিট আর এই সিটটি সামান্য ঢেউয়ের মতো করে ডিজাইন করা হয়েছে যা বেশ চমৎকার দেখতে। আর এই মোটরসাইকেলটি তিনটি রঙ্গে বাজারে পাওয়া যাবে সেগুলো হচ্ছে কালো, ধূসর এবং লাল।

ইঞ্জিনঃ

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলে একটি এয়ার কোল্ড কুলিং সিস্টেম, ৪টি স্ট্রোক, একটি সিঙ্গেল সিলিন্ডার এবং একটি এসওএইচসি ধরণের ইঞ্জিন সংযুক্ত করা হয়েছে যা বেশ ভাল মানের ইঞ্জিন। আর এই ১০০ সিসির মোটরসাইকেলে ডিস্প্লেসিমেন্ট ইঞ্জিন রয়েছে ১১২.৮ যা এ ধরণের স্ট্যান্ডার্ড বাইকের জন্য খুবি ভাল মানের ইঞ্জিন। এছাড়াও সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের সর্বচ্চ পাওয়ার হচ্ছে ৮.৫৮ বিএইচপি এবং ৭৫০০ আরপিএম এবং ইঞ্জিনের সর্বচ্চ তোরকিউ হচ্ছে ৯.৩ এনএম এবং ৫০০০ আরপিএম। এছাড়াও এই ইঞ্জিনে আরো সংযুক্ত করা হয়েছে একটি সিডি আই ধরণের ইগনিশন সিস্টেম এবং বাইকটি দ্রুত চালু করার জন্য দুটি বাইক চালু করার মাধ্যম একটি ইলেক্ট্রিক এবং একটি কিক।

স্পিড এবং মাইলিয়েজঃ

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলটি স্পিড এবং মাইলিয়েজের দিক থেকেও বেশ ভাল কেননা এই মোটরসাইকেলটি প্রতি ঘন্টায় সর্বচ্চ ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত গতিতে ছুটতে সক্ষম কারণ এর সর্বচ্চ স্পিড হচ্ছে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় । এছাড়াও এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে সক্ষম যেটি বেশ ভাল মানের মাইলিয়েজ।

ফুয়েল ট্যাংকঃ  

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকটি মাঝাড়ি সাইজের এবং বেশ চমৎকারভাবে ডিজাইন করা হয়েছে এই ফুয়েল ট্যাংকটি। আর এই ফুয়েল ট্যাংকটিতে বেশ ভাল মাপের ফুয়েল ধারণ ক্ষমতা রয়েছে এই ফুয়েল ট্যাংকটি সর্বচ্চ ১০ লিটার পর্যন্ত ফুয়েল ধারণ করতে সক্ষম যার দ্বারা আপনি সহজেই ৬০০ কিলোমিটার পর্যন্ত মোটরসাইকেল চালিয়ে যেতে পারবেন সম্পূর্ণ ভর্তি ফুয়েল ট্যাংকে।

সাস্পেনশনঃ

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলে বেশ ভাল এবং উন্নত মানের দুটি সাস্পেনশন সিস্টেন সংযুক্ত করা হয়েছে। এই বাইকের সামনের অংশে রয়েছে একটি টেলিস্কপিক ধরণের সাস্পেনশন এবং এর পেছনের অংশে একটি টুইন শক্স ধরণের সাস্পেনশন সিস্টেম রয়েছে।

ব্রেকঃ

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলটি বাইকারদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তারা যাতে কোন অসুবিধা ছাড়াই বাইকটিকে সহজে নিয়ন্ত্রন করতে পারেন সে কারণে মোটরসাইকেলটিতে দুটি শক্তিশালী ব্রেকিং সিস্টেপ সংযুক্ত করা হয়েছে। এই মোটরসাইকেলটির সামনের দিকে একটি ড্রাম ব্রেক এবং বাইকের পেছনের দিকে একটি ড্রাম ধরণের ব্রেকিং সিস্টেম রয়েছে যেগুলো এই বাইকটিকে সহজেই নিয়ন্ত্রন করতে বাইকারদের অনেক সাহায্য করবে।

দামঃ

সুজুকি হায়াতে মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের বাজার অনুসারে এর বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ১,১৯,৯৫০ টাকা।

শেষ কথাঃ

সুজুকি হায়াতে হচ্ছে সুজুকি মোটরসাইকেল কোম্পানির স্ট্যান্ডার্ড ধরণের এবং চমৎকার ডিজাইনের একটি মোটরসাইকেল। আর এই স্ট্যান্ডার্ড ধরণের মোটরসাইকেলের অসাধারণ নজরকাড়া ভিন্ন ধরণের ডিজাইন এর উন্নত মানের ইঞ্জিন কুয়ালিটি, মাইলিয়েজ এবং উন্নত মানের ব্রেকিং সিস্টেম সকল কিছু সম্পর্কে জানার পর মোটরসাইকেল প্রেমিরা সত্যিই মুগ্ধ হবেন এবং নিঃসন্দেহে এই বাইকটি কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করবেন।

Full Specification of Suzuki Hayate