রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর (Race Fiero 150FR) ফিচার রিভিউ

রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর


রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর (Race Fiero 150FR) ফিচার রিভিউ

রেস মোটরসাইকেল অনেকের কাছে অপরিচিত একটি মোটরসাইকেলের নাম হলেও এটি মূলত চাইনিজ মোটরসাইকেল ব্রেন্ড যারা বেশ অনেকদিন যাবৎ তাদের রেস এর মোটরসাইকেল বাজারে নিয়ে আসছে এবং দিনে দিনে তাদের পরিচিত বাড়ছে। এই রেস মোটরসাইকেল কোম্পানি এ পর্যন্ত বেশ কিছু স্পোর্টস এবং ক্রুজার মোটরসাইকেল তৈরি করেছে আর এই মোটরসাইকেলগুলো অন্য সব মোটরসাইকেলের থেকে ভিন্ন ভিন্ন ডিজাইন এবং টেকনলজি ব্যবহার করার কারণে রেস এর মোটরসাইকেলগুলো সাধারণ মানুষের নজর কেড়েছে যার কারণে তারা বেশকিছু স্টাইলিশ এবং ভিন্ন ধরণের স্পোর্টস বাইক বাজারে নিয়ে এসেছে। আর আজকে আমি রেস এর এমনি একটি ভিন্ন ধরণের স্পোর্টস বাইক সম্পর্কে বর্ণনা করতে যাচ্ছি যা দেখার পর অনেক মোটরসাইকেল প্রেমিই এই মোটরসাইকেলটি কিনতে আগ্রহী হবেন বলে আমার মনে হয়। আর এই মোটরসাইকেলটি হলো রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর (Race Fiero 150FR) মোটরসাইকেল আর এটি একটি স্পোর্টস ক্যাটাগরির মোটরসাইকেল এবং একদম ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের কারণে এই বাইকটি সহজেই সকলের নজরে পড়বে। তো চলুন জেনে নেয়া যাক রেস এর এই মোটরসাইকেলটি সম্পর্কে বিস্তারিত।

ডিজাইনঃ

একদম ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের মোটরসাইকেল হচ্ছে এই রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর। এই বাইকের সামনের দিক থেকে দেখলেই প্রথমেই আপনার নজর কাড়বে অসাধারণ এবং ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের হেডলাইটটি যা সত্যিই চমৎকার দেখতে এবং একদমি আলাদাভাবে তৈরি করা হয়েছে। এর পরে এই বাইকের ইউনিক ডিজাইনের ফুয়েল ট্যাংক দেখে যে কেউ মুগ্ধ হবেন এই ফুয়েল ট্যাংকটি বেশ চওড়া মাপের এবং ফুয়েল ট্যাংকের দুপাশেই দুটি বাকানো প্লাস্টিক সেপ রয়েছে যা এই বাইকের আলাদা আকর্ষন বাড়িয়েছে। আর এই বাইকের সব থেকে আকর্ষনিয় অংশ হচ্ছে বাইকের পেছনের অংশ যেখানে বাইকের পেছনের সিট এবং পেছনের চাকার মধ্যে অনেকখানি দূরত্ব রয়েছে যা দেখলে আপনার মনে হবে যে বাইকের পেছনের সিটটি একদম শূন্যে ভেসে আছে যা বাইকের ডিজাইনে অন্য মাত্রা যোগ করেছে।

ইঞ্জিনঃ

এই বাইকের ইঞ্জিনের মধ্যে রয়েছে লিকুইড কোল্ড ইএফ আই এবং একটি সিঙ্গেল সিলিন্ডার। আর এই বাইকের ১৪৯.৪ সিসি ইঞ্জিন এই বাইকের ইঞ্জিনকে করেছে আরো শক্তিশালী যা এই বাইকের প্রতি আপনাকে আগ্রহী করে তুলবে। এছাড়াও এই বাইকের ইঞ্জিনের সর্বচ্চ পাওয়ার হচ্ছে ১২ বিএইচপি এবং ৮৫০০ আরপিএম এবং বাইকের সর্বচ্চ তোরকিউ হচ্ছে ১০.৭ এনএম এবং ৭৫০০ আরপিএম যা বাইকের ইঞ্জিনের শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

গিয়ারঃ

আপনি এটা জানলে অবশ্যই খুশি হবেন যে এই রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলটিতে রয়েছে ৬ টি গিয়ার যা সত্যিই একজন বাইকারের জন্য অসাধারণ সংবাদ। এবং বাইকার এই বাইকটির ৬টি গিয়ার ব্যবহার করতে বেশ সাচ্ছন্দবোধ করবে।

স্পিড এবং মাইলিয়েজঃ

স্পিড এবং মাইলিয়েজের দিক থেকে কোন অংশে কম নেই এই রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলটি। কারণ এই মোটরসাইকেলটি প্রতি ঘন্টায় ১২০ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে সক্ষম। এবং এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে ৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারবে যা আপনার লং জার্নির জন্য অনেক কার্যকর হবে।

ফুয়েল ট্যাংকঃ

বেশ বড় সাইজের ফুয়েল ট্যাংক হলেও এই মোটরসাইকেলের ট্যাংকটিতে খুব একটা বেশি ফুয়েল ধারণ ক্ষমতা নেই। রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকটিতে ১০ লিটার পর্যন্ত ফুয়েল গ্রহন করা যাবে যার দ্বারা আপনি সহজেই ৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তা ভ্রমন করতে পারবেন সম্পুর্ণ ভর্তি ফুয়েল ট্যাংকে।

সাস্পেনশনঃ

রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলে দুটি বেশ মজবুত এবং সন্তোষজনক সাস্পেনশন সিস্টেম রয়েছে। এই বাইকের সামনের অংশে একটি টেলিস্কপিক ইউএসডি সাস্পেনশন এবং বাইকের পেছনের অংশে একটি মনো সাস্পেশন সিস্টেম সংযুক্ত করা হয়েছে।

ব্রেকঃ

রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলের ব্রেকগুলোও বেশ মজবুত এবং শক্তিশালী। এই মোটরসাইকেলের সামনের দিকে একটি ডিস্ক এবং পেছনের দিকেও একটি ডিস্ক ব্রেকিং সিস্টেম রয়েছে।

দামঃ

রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের বাজার অনুসারে এর বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ১,৯৪,০০০ টাকা।

শেষ কথাঃ

রেস ফিয়েরো ১৫০এফআর মোটরসাইকেলটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানার পর এটুকু বলা যায় যে এটি হচ্ছে একটি স্টাইলিশ এবং ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের স্পোর্টস বাইক। এবং এর ডিজাইন থেকে শুরু করে ইঞ্জিন, স্পিড, মাইলিয়েজ, ব্রেক সাস্পেনশন সকল কিছুই অসাধারণ এবং বেশ ভাল মানের। যার কারণে যে কোন বাইকার বাইকটি নিঃসন্দেহে কিনতে পারেব এবং ব্যাবহার করতে পারেন। আশা করি রেস এর এই বাইকটি সকল মোটরসাইকেল প্রেমির বেশ পছন্দ হবে।

Full Specification of Race Fiero 150FR