হোম মোটরসাইকেল রিভিউ ফিচার রিভিউ কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ (Kawasaki KLX 150 BF) ফিচার রিভিউ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ (Kawasaki KLX 150 BF) ফিচার রিভিউ

0
0
কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ (Kawasaki KLX 150 BF) ফিচার রিভিউ

কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল মূলত জাপান, অ্যামেরিকা, ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া এবং থাইল্যান্ডের মোটরসাইকেল ও ইঞ্জিন বিভাগ কাওয়াসাকি হেভি ইন্ড্রাসটি এট প্লেন্টস দ্বারা নির্মিত হয়ে থাকে। আর এই কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল গ্রুপের মোটরসাইকেলগুল একদমি ভিন্ন ধরণের মোটরসাইকেল হওয়াই এর সব মোটরসাইকেলগুলো সহজেই মানুষের নজর কাড়তে সক্ষম। কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল কোম্পানি তাদের মোটরসাইকেলগুলো বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করে থাকে তার মধ্যে বাংলাদেশে অন্যতম। আর আজকে আমি এই কাওয়াসাকি গ্রুপের অসাধারণ ডিজাইনের একটি মোটরসাইকেল আপনাদের মাঝে উপস্থাপন করতে যাচ্ছি যে মোটরসাইকেলের ভিন্ন ধর্মী ডিজাইন এবং অসাধারণ সব ফিচার সমূহ আপনাকে সহজেই আকৃষ্ট করবে। আর সেই মোটরসাইকেলটি হচ্ছে কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ (Kawasaki KLX 150 BF)। তো চলুন জেনে নেয়া যাক অসাধারণ এই মোটরসাইকেল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যসমূহ।

ডিজাইনঃ

একদমি ইউনিক ডিজাইনের মোটরসাইকেল হচ্ছে এই কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ। ডিজাইনের দিক থেকে বলতে গেলে এই মোটরসাইকেলের সামনের এবং পেছনের অংশটি সহজেই আপনার চোখে পড়বে। কারণ এই মোটরসাইকেলের সামনের অংশ এবং এর পেছনের উভয় অংশয় বাইকের দুই চাকার থেকে অনেকখানি উচুতে রাখা হয়েছে এবং বাইকের চাকা এবং বডির মাঝখানে অনেকখানি দূরত্ব রয়েছে যা দেখলেই আপনি বেশ আকর্ষিত হবেন  বাইকটির প্রতি। আর খুব একটা বড় দেহের মোটরসাইকেল এটি নয় যার কারণে এই মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকটি বেশ ছোট আকারে তৈরি করা হয়েছে। আর এই বাইকটিতে আরো রয়েছে একটি চমৎকার ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের বসার সিট আর এটি দেখতে খুব একটা বড় ধরণের নয় কিন্তু এটি বেশ আরামদায়ক একটি সিট।

ইঞ্জিনঃ

৪টি স্ট্রোক, একটি সিঙ্গেল সিলিন্ডার এবং একটি এস ওএইচসি ধরণের ইঞ্জিন রয়েছে এই মোটরসাইকেলটিতে। আর এই মোটরসাইকেলটির ডিস্প্লেসিমেন্ট ইঞ্জিন সংযুক্ত করা হয়েছে ১৪৪ সিসি যা সত্যিই অসাধারণ। এছাড়াও এই ইঞ্জিনের সর্বচ্চ পাওয়ার হচ্ছে ১০.৩০ বিএইচপি এবং ৮০০০ আরপিএম আর ইঞ্জিনের সর্বচ্চ তোরকিউ হচ্ছে ১০ এনএম এবং ৬৪০০ আরপিএম। এছাড়াও ইঞ্জিনে রয়েছে একটি ডিজিটাল ডিসি সিডি আই ধরণের ইগনিশন সিস্টেম এবং একটি ইলেক্ট্রিক স্টার্টিং সিস্টেম।

গিয়ারঃ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ মোটরসাইকেলটিতে ৫টি গিয়ার বক্স সংযুক্ত করা হয়েছে যা বেশ ভাল মানের গিয়ার এই বাইকটির জন্য।

ফুয়েল ট্যাংকঃ 

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকটি খুব একটা বড় সাইজের না হলেও এটিতে মোটামুটি ভাল মাপের ফুয়েল গ্রহন করার ক্ষমতা রয়েছে। এই ফুয়েল ট্যাংকটি সর্বচ্চ ৭ লিটার পর্যন্ত ফুয়েল ধারণ করতে সক্ষম যা বেশ মোটামুটি ভাল মানের ফুয়েল ক্যাপাসিটি এই ধরণের বাইকের জন্য।

সাস্পেনশনঃ

বেশ উন্নত মানের সাস্পেনশন সিস্টেম সংযুক্ত করা হয়েছে এই কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ মোটরসাইকেলটিতে। এই মোটরসাইকেলের সামনের দিকে আছে একটি টেলিস্কপিক ইউ এস ডি সাস্পেনশন এবং এই বাইকের পেছনের ইউনি-ট্র্যাক সিঙ্গেল গ্যাস শক এর সাথে ৫ টি ওয়ে স্প্রিং প্রিলোডেড এডজাস্টমেন্ট ধরণের সাস্পেনশন রয়েছে যা এই ধরণের মোটরসাইকেলের জন্য সত্যিই বেশ ভাল।

ব্রেকঃ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ মোটরসাইকেলটিতে দুটি বেশ মজবুত এবং শক্তিশালী ব্রেকিং সিস্টেম রাখা হয়েছে মোটরসাইকেলটি ভালভাবে নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করতে এগুলো বেশ কার্যকর ভূমিকা রাখবে। এই মোটরসাইকেলের সামনের দিকে একটি ডিস্ক এবং পেছনের দিকেও একটি ডিস্ক ধরণের ব্রেকিং সিস্টেম রয়েছে যেগুলো সত্যিই বেশ মজবুত এবং শক্তিশালী।

দামঃ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের বাজার অনুসারে এর বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ৪,২০,০০০ টাকা।

শেষ কথাঃ

কাওয়াসাকি কেএলএক্স ১৫০ বিএফ  হচ্ছে কাওয়াসাকি মোটরসাইকেল কোম্পানির অসাধারণ এবং ভিন্ন ধরণের ডিজাইনের মোটরসাইকেল যার ইউনিক ডিজাইন শক্তিশালী ইঞ্জিন কুয়ালিটি এবং অসাধারণ সব ফিচার সমূহ সহজেই আপনাকে আকৃষ্ট করবে।  

Full Specification of Kawasaki KLX 150 BF

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।