বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি (Bajaj Discover 125 ST) ফিচার রিভিউ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি


বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি (Bajaj Discover 125 ST) ফিচার রিভিউ

বাজাজের ডিসকভার সিরিজের মোটরসাইকেলগুলো প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের বাজারে তাদের নতুন নতুন সব মোটরসাইকেল নিয়ে এসে বাংলাদেশের মানুষের নজর কাড়ছে এবং বাংলাদেশের মোটরসাইকেল মার্কেটে বাজাজ ডিসকভার সিরিজের মোটরসাইকেলগুলোর ভাল চাহিদা থাকাই তারা প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের মোটরসাইকেল বাজারে তাদের মোটরসাইকেল সরবরাহ করে যাচ্ছে আর সফলতা অর্জন করে যাচ্ছে। আর স্ট্যান্ডার্ড ক্যাটাগরির বাইকের লিষ্টে বাজাজের ডিসকভার সিরিজের মোটরসাইকেল  নিঃসন্দেহে সকল মোটরসাইকেলের উপরে থাকবে। আর আজকে আমি আপনাদের মাঝে বাজাজের চমৎকার একটি স্ট্যান্ডার্ড ক্যাটাগরির মোটরসাইকেল নিয়ে আলোচনা করবো সেটি হচ্ছে বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি (Bajaj Discover 125 ST)। তো চলুন জেনে নেয়া যাক এই অসাধারণ স্ট্যান্ডার্ড ক্যাটাগরির মোটরসাইকেল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সমূহ।

ডিজাইনঃ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  এই মোটরসাইকেলটির ডিজাইন অন্যান্য বাজাজ ডিসকভার মোটরসাইকেলের চেয়ে আলাদা। মাঝাড়ি দেহের মোটরসাইকেল এই বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  আর এই মোটরসাইকেলের সামনের অংশ বেশ চমৎকারভাবে ডিজাইন করা হয়েছে বিশেষ করে এর ফুয়েল ট্যাংক, আমরা দেখেছি আগের ডিসকভার মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকগুলো ছোট আকারের এবং সমান হয়ে থাকে কিন্তু এই ফুয়েল ট্যাংকটি সামান্য বড় আকারের এবং এই ফুয়েল ট্যাংকটি সামান্য সামনের দিকে বাকানো হয়েছে যার কারণে এই ফুয়েল ট্যাংকটি দেখতে বেশ আকর্ষনিয় হয়ে উঠেছে।  এছাড়াও এই বাইকে রয়েছে চমৎকার ডিজাইনের সুদর্শন এবং বেশ আরামদায়ক একটি বসার সিট যেটি ঢেউয়ের মতো উচু নিচু ভাবে তৈরি করা হয়েছে বলে দেখতেও চমৎকার। আর এই মোটরসাইকেলটি আপনি বেশ কয়েকটি রঙ্গে বাজারে পাবেন সেগুলো হচ্ছে  কালো ও নীল, গাড়হ নীল, লাল, এবং কালো ও লাল। 

ইঞ্জিনঃ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি মোটরসাইকেলটি  ৪টি ভাল্ভ, টুইন স্পার্ক, এবং একটি এয়ার কোল্ড ধরণের ইঞ্জিন দিয়ে সাজানো হয়েছে যা একটি স্ট্যান্ডার্ড বাইকের জন্য বেশ উন্নত মানের ইঞ্জিন কুয়ালিটি। আর বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি মোটরসাইকেলের ডিস্প্লেসিমেট ইঞ্জিন হচ্ছে ১২৪.৬  সিসি। আর এই ইঞ্জিনের সর্বচ্চ পাওয়ার হচ্ছে ১৩ পিএস এবং ৯০০০ আরপিএম ও এর সর্বচ্চ তোরকিউ হচ্ছে ১.১ কেজি-এম এবং ৭০০০ আরপিএম। এছাড়াও এই বাইকের ইঞ্জিনে রয়েছে  একটি ডিজিটাল সিডি আই ইগনিশন সিস্টেম এবং দুটি বাইক চালু করার মাধ্যম একটি ইলেক্ট্রিক এবং একটি কিক।

স্পিড এবং মাইলিয়েজঃ

বেশ ভাল মানের স্পিড এবং মাইলিয়েজ নিয়ে হাজির হয়েছে এই বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি মোটরসাইকেলটি। এই মোটরসাইকেলটি প্রতি ঘন্টায় সর্বচ্চ ১১০ কিলোমিটার গতি বেগে ছুটতে পারবে যা সত্যিই বেশ ভাল মানের স্পিড একটি স্ট্যান্ডার্ড মোটরসাইকেলের জন্য। এছাড়াও অসাধারণ মাইলিয়েজ থাকছে এই মোটরসাইকেলটিতে, এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে ৫৮ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে সক্ষম যা সত্যিই যে কোন বাইকারের জন্যই অসাধারণ।  

ফুয়েল ট্যাংকঃ 

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি এই মোটরসাইকেলের ফুয়েল ট্যাংকটি দেখতে মাঝাড়ি সাইজের এবং এই ফুয়েল ট্যাংকটিতে ফুয়েল ধারণ ক্ষমতাও খুব কম রয়েছে যেখানে এই ট্যাংকটি সর্বচ্চ ১০ লিটার পর্যন্ত ফুয়েল ধারণ করতে পারবে যার দ্বারা আপনি তবুও সহজেই ৫৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত ভ্রমন করতে পারবেন সম্পূর্ণ ট্যাংকটি ভর্তি করে।

সাস্পেনশনঃ

দুটি অসাধারণ এবং উন্নত মানের সাস্পেনশন সংযুক্ত করা হয়েছে এই বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  মোটরসাইকেলটিতে। এর সামনের দিকে রয়েছে একটি টেলিস্কপিক সাস্পেনশন এবং এর পেছনের দিকে রয়েছে  নিট্রোক্স মনোশক ধরণের সাস্পেনশন যা সত্যিই বেশ উন্নত মানের ও কার্যকরি সাস্পেনশন।

ব্রেকঃ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  মোটরসাইকেলের ব্রেকগুলোও বেশ উন্নত মানের এবং মজবুত। এই বাইকের সামনের দিকে আপনি পাচ্ছেন দুই ধরণের ব্রেকিং সিস্টেম যেখানে রয়েছে একটি ডিস্ক ও ড্রাম ধরণের ব্রেকিং সিস্টেম এবং এর পেছনের দিকে আছে একটি  ড্রাম ব্রেক।  

দামঃ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের বাজার অনুসারে এর বর্তমান বাজার মূল্য মাত্র ১,৫২,৫০০ টাকা। 

শেষ কথাঃ

বাজাজ ডিসকভার ১২৫ এসটি  হচ্ছে চমৎকার ডিজাইনের স্ট্যান্ডার্ড ধরণের একটি মোটরসাইকেল যার ভিন্ন ধরণের ডিজাইন উন্নত মানের ইঞ্জিন কুয়ালিটি অসাধারণ স্পিড এবং ভাল মানের মাইলিয়েজ কুয়ালিটি সকল কিছুই যে কোন মোটরসাইকেল প্রেমিকে এই মোটরসাইকেলটি কিনতে আগ্রহী করে তুলবে। আর নিঃসন্দেহে যে কোন মোটরসিকেল প্রেমি এই মোটরসাইকেলটি কিনতে পারেন।

Full Specification of Bajaj Discover 125 ST